আজ রাতের আকাশে দেখা যাবে মহাজাগতিক দৃশ্য!

0

চলতি বছর এই নিয়ে দ্বিতীয়বার চন্দ্রগ্রহণের সাক্ষী থাকতে চলেছে বিশ্ব। তবে আজ (৫ জুন) রাতের আকাশে দেখা যাবে ভিন্ন এক চন্দ্রগ্রহণ। চাঁদের রং থাকবে স্ট্রবেরির মতো। তাকে ডাকা হবে ‘স্ট্রবেরি মুন’ বলে। কিছুক্ষণের মধ্যেই সেই চন্দ্রগ্রহণের সাক্ষী হতে যাচ্ছে পৃথিবীর মানুষ।

শুক্রবার বাংলাদেশসহ এশিয়ার নানা দেশ ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া, আফ্রিকা, ইউরোপের বিভিন্ন দেশ, আন্টার্কটিকা থেকেও দেখা যাবে ‘স্ট্রবেরি মুন’।

বিশেষ সময়ের পূর্ণ চাঁদকেই ‘স্ট্রবেরি মুন’ ডাকা হয়। যা একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় নাম। এ চাঁদকে ‘মিড মুন’ বা ‘হানি মুন’ নামেও ডাকা হয়।

জুন মাসে চন্দ্রগ্রহণ হলে চাঁদকে ‘স্ট্রবেরি মুন’ ডাকার কারণ রয়েছে। এ মাসে স্ট্রবেরি ফসল কাটার সময়। তাই ফসলের সঙ্গে মিল রেখে জুন মাসের চন্দ্রগ্রহণকে ‘স্ট্রবেরি মুন’ ডাকা হয়।

আমেরিকায়ও জুন মাসে স্ট্রবেরির ফসল কাটা হয়। তাই সে দেশেও জুন মাসে দেখতে পাওয়া পূর্ণ চন্দ্রকে ‘স্ট্রবেরি মুন’ বলেও ডাকা হয় ।

বাংলাদেশের সময় অনুসারে শুক্রবার রাত ১০টা ৪৫ মিনিট থেকে শুরু হবে চন্দ্রগ্রহণ। চলবে রাত ২ টা ০৪ পর্যন্ত। এ সময় বাংলাদেশের মানুষ ঘুমানোর প্রস্তুতি নেয়ার কথা। বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া, আফ্রিকা ও রাশিয়া থেকে এ চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে।

বিজ্ঞানীরা জানান, এ চন্দ্রগ্রহণ খালি চোখেই দেখা যাবে। তাতে চোখে কোনও ক্ষতি হবে না। ১২ টা ২৪ নাগাদ চাঁদের ওপর গ্রহণের সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়বে।

এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে চন্দ্রগ্রহণ হয়েছিল। সেটিও ছিল উপচ্ছায়া গ্রহণ। এবারও তাই হচ্ছে। এরপর ৫ জুলাই আবারো চন্দ্রগ্রহণ হবে। চতুর্থ এবং শেষ চন্দ্রগ্রহণ হবে ৩০ নভেম্বর। তবে এ বছরই পিংক ফুল মুন ও ফ্লাওয়ার ফুল মুন হয়েছে।

চলতি বছর আরও দু’বার গ্রহণের সাক্ষী হবে বিশ্ববাসী। পরবর্তী গ্রহণ ঠিক একমাস পর ৫ জুলাই এবং পরের গ্রহণ ৩০ নভেম্বর।

একটি উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে